শেয়ারবাজার

ঊর্ধ্বযাত্রা অব্যাহত

সাড়ে পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২২:১৬:০০ মিনিট, জানুয়ারি ১১, ২০১৭

রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ১০ দিন পর দর সংশোধনে ছিল দেশের শেয়ারবাজার। ক্রমবর্ধমান আশাবাদের জোরে পরের দিনই ঘুরে দাঁড়ায় বাজার। ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসেও অব্যাহত ছিল। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) কেনাবেচা ১ হাজার ৬৯৬ কোটি ৯৪ লাখ টাকা ছাড়িয়েছে, যা গত সাড়ে ৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। কেনাবেচা ও সূচক বেড়েছে চট্টগ্রামের শেয়ারবাজারেও।

ডিএসইতে গতকাল ৩২৬টি কোম্পানি, করপোরেট বন্ড ও মিউচুয়াল ফান্ডের মোট ৫১ কোটি ৩১ লাখ ৭ হাজার ৩৪৭টি শেয়ার বা ইউনিট হাতবদল হয়, যার বাজারদর ১ হাজার ৬৯৬ কোটি ৯৪ লাখ ২৯ হাজার ২৩২ টাকা। আগের দিন তা সাড়ে ১ হাজার ২০০ কোটির নিচে ছিল।

দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৬২ দশমিক ৭৯ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ২ শতাংশ বেড়ে ৫ হাজার ২৭৭ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে, ব্লু-চিপ সূচক ডিএস-৩০ আগের দিনের চেয়ে ১৫ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৯৪ দশমিক ৬৬ এবং শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ১০ দশমিক ২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৪০ দশমিক ৪২ পয়েন্টে উন্নীত হয়। লেনদেনকৃত সিকিউরিটিজের মধ্যে ডিএসইতে গতকাল দাম বেড়েছে ২১৮টির, কমেছে ৭৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টির বাজারদর।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল ১০৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকার বেশি কেনাবেচা হয়, আগের দিন যা ছিল ৭৫ কোটির কম। সিএসইর প্রতিটি সূচকই গতকাল ১ থেকে দেড় শতাংশ হারে বেড়েছে।

লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) সবচেয়ে এগিয়েছিল বেক্সিমকো লিমিটেড, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমস, এ্যাপোলো ইস্পাত, ইফাদ অটোস, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, ইউনিক হোটেল, অলিম্পিক অ্যাকসেসরিজ, ডেসকো, কেয়া কসমেটিকস ও ডরিন পাওয়ার। দরবৃদ্ধির শীর্ষে ছিল— প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, জিবিবি পাওয়ার, তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ, সিমটেক্স, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স, প্রাইমটেক্স, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, ফারইস্ট নিটিং ও এভিন্স টেক্সটাইল।

অন্যদিকে দাম কমার শীর্ষে ছিল— ইমাম বাটন, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, ইবিএল এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ড, জিল বাংলা সুগার, উসমানিয়া গ্লাস, রংপুর ফাউন্ড্রি, মেঘনা পিইটি, পেনিনসুলা চিটাগং, কনফিডেন্স সিমেন্ট ও অ্যাম্বি ফার্মা।